কী সুন্দর ফুল! যেমন রং। তেমনই আকৃতি। অবিকল যেন গাছের ডালে ফুটে আছে রঙিন হৃদয়। প্রেমিক হৃদয় তো রঙিনই হয়। রঙিন, নাকি রক্তাক্ত? যাই ভাবুন, একটু থামুন। দেখতে যেমনই হোক, এই ফুল কিন্তু সাংঘাতিক।

অনেকেরই মনে পড়ে যেতে পারে সত্যজিৎ রায়ের বিখ্যাত ছোটগল্প ‘বিষফুল’-এর কথা। সেখানেও ‘ভারী সুন্দর হলদে কমলা আর বেগুনি রঙের ফুল’-এর সন্ধান পেয়েছিলেন গল্পের প্রধান চরিত্র জগন্নাথবাবু। ক্রমে আবিষ্কৃত হয়েছিল ফুলটির সুন্দর চেহারার আড়ালে লুকিয়ে থাকা ভয়ানক বিপদের কথা।

সত্যজিতের ‘বিষফুল’ নেহাতই গল্প। ‘এশিয়ান ব্লিডিং হার্ট’ নামের ওই ফুলের শরীরময় বিষের থলি! ছুঁলেই সর্বনাশ। হয়তো মৃত্যু হবে না। কিন্তু আপনাকে শয্যাশায়ী করে দিতেই পারে এই ফুল। অ্যালার্জি হয়ে শরীরময় লাল দাগে ভরে যেতে থাকবে। শ্বাস নিতে কষ্ট হবে। বমির ভাব হবে। সব মিলিয়ে এই ফুল সত্যিই বিপজ্জনক।

কাজেই রক্তাক্ত হৃদয়টি গাছেই ঝুলে থাকুক। কখনও সামনাসামনি ‘হৃদয় খুঁড়ে বেদনা জাগাতে’ না চাওয়াতেই মঙ্গল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here