সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার রতনকান্দি আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক ও লাইব্রেরিয়ান মোঃ কামরুজ্জামানকে রড দিয়ে পিটিয়ে দাঁত ভেঙ্গে দিয়েছে দশম শ্রেণির ছাত্র আসিফ মোল্লা।

গতকাল বৃহস্পতিবার মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বিদ্যালয়ের প্রভাত ফেরীর র‌্যালী চলাকালীন সময়ে শিক্ষক কামরুজ্জামানকে রড দিয়ে মাথা ও মুখে আঘাত করলে সাথে সাথে তার দাঁত ভেঙ্গে যায়। পরে তার সহকর্মী ও স্থানীয়রা শিক্ষক কামরুজ্জামানকে উদ্ধার করে প্রথমে শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হলে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে দ্রুত সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

এ ব্যাপারে রতনকান্দি আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম কিবরিয়া ও দাতা সদস্য এনামুল হক হিরা জানান, প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বিদ্যালয়ের প্রভাত ফেরীর র‌্যালীর আয়োজন করা হয়। র‌্যালীতে ছাত্রীদের সামনে ও ছেলেদের পিছনে রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হলে দশম শ্রেণির ছাত্র আসিফ মোল্লা শিক্ষকদের কথা অমান্য করে র‌্যালীর সামনে দাড়ায় এবং ছাত্রীদের উত্যক্ত করলে প্রধান শিক্ষক গোলাম কিবরিয়া তাকে র‌্যালীর সামনে থেকে পিছনে যেতে বলে।

এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে ছাত্র আসিফ মোল্লা র‌্যালী থেকে বের হয়ে সুযোগ বুঝে র‌্যালীর পিছনে থাকা শিক্ষক কামরুজ্জামানকে রাস্তার পাশের দোকানের রড দিয়ে এলোপাথারি আঘাত করতে থাকে। আঘাতের এক পর্যায়ে শিক্ষক কামরুজ্জামানের মুখের দাঁত ভেঙ্গে যায় এবং ব্যাপক রক্তক্ষরণ ঘটে। অবস্থা আশংকাজনক হলে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে অবস্থার অবনতি হলে পরে সিরাজগঞ্জ সদর হাসপালে স্থানান্তরিত করা হয়।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শাহজাদপুর থানায় ছয়জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করে। পরে শাহাজদপুর থানা পুলিশ মামলার অন্যতম আসামী স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি চাদুল্লাহ মোল্লাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here