তিন কেজির টাকায় এক কেজি গাঁজা পাওয়ায় কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়ায় পুলিশের জরুরি সেবা ৯৯৯-এ কল করে নারী মাদক ব্যবসায়ী সালমা গ্রেফতারের পর গাঁজা ব্যবসায়ী আব্দুর রহিমকে (৩২) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ব্রাহ্মণপাড়া থানার ওসি সৈয়দ আবু মো. শাহজাহান কবির।

আজ রবিবার আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল হাজতের প্রেরণ করা হয়েছে।

ওসি জানান, গত ৯ জানুয়ারি রাতে থানার এস আই মো. বাবুল হোসেন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার শশীদল দক্ষিণপাড়া গ্রামে অভিযান পরিচালান করে আব্দুর রহিমকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত আব্দুর রহিম ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার শশীদল দক্ষিণপাড়া গ্রামের আবুল হাসেমের ছেলে।

জানা গেছে, গত ২৭ জানুয়ারি আব্দুর রহিমকে ৩ কেজি গাঁজার দাম দিয়ে ১ কেজি গাঁজা পাওয়ায় পুলিশের জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন দিয়ে অভিযোগ করেছেন নারী মাদক ব্যবসায়ী সালমা বেগম। ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার সীমান্ত এলাকা থেকে গাঁজা কিনে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় বিক্রি করেন অভিযোগকারী সালমা বেগম ও তার স্বামী।

এ উদ্দেশ্যেই তিন কেজি গাঁজার জন্য পাইকারী বিক্রেতা রহিমকে টাকা দেয় সালমা। কিন্তু তিন কেজির টাকা নিয়ে সালমাকে এক কেজি গাঁজা দেয় রহিম। এক পর্যায়ে পুলিশের জরুরি সেবা ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে এসব ঘটনার বিস্তারিত সবকিছু জানিয়ে দেয় সালমা।

এরপর ব্রাহ্মণপাড়া থানার এসআই জাকির ব্রাহ্মণপাড়া সদর বাজারে অভিযান পরিচালনা করে। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে স্থানীয় পাইকারি গাঁজা ব্যবসায়ী আব্দুর রহিম পালিয়ে যায়। তবে অভিযোগকারী ও খুচরা বিক্রেতা সালমা বেগমকে (৪০) আটক করে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here